পাহাড়-পাহাড় খেলা
——————–
[আজ (April 10, 2015) facebook-এ আমাদের একটা “ক্লোজেড গ্রুপ”-এ “এইসব পাহাড়েরা” নামে একটা লেখা শেয়ার করল একজন, সেটা দেখে কি মাথায় এলো তক্ষুনি দু’লাইন উল্টো-পাল্টা লিখে ফেললাম এবং ওখানে দিলাম। কিন্তু ওটা “ক্লোজেড গ্রুপ” নন-মেম্বার বাকিরা কেউ দেখতে পাবে(ন) না, তাই এখানেও, মানে আমার টাইম-লাইনে দিলাম!  অল্প পুঁজি, যাতে ফেসবুকের গভীরে তলিয়ে না যায়, তার জন্য এখানেও এক কপি রাখলাম!]

পাহাড়-পাহাড় খেলা

পাহাড় একটা বানিয়েছি
তিল তিল করে
তিনশো কোটি বছর ধরে
এতো ঘষা-মাজা করলাম
তেল-জলে চুবিয়ে, চাপড়ে-চুপড়ে
পাঁজি-পুঁতি ঘেঁটে নাড়ি-নক্ষত্র গুনে
ফাগুনে আগুনে সেঁকে
আধপোড়া এক উপস্বর্গ
সেই আমার তিলোত্তমা

আমার সে পাহাড় এখন স্বপ্নের শিখরে
ক্রমশঃ স্বচ্ছ থেকে স্বচ্ছতর
স্বচ্ছতর থেকে অতিস্বচ্ছতর
হতে হতে হতে…
অস্তিত্বের দূর্গে চড়ে
ভাবনার রশ্মি-গুল্মলতা জড়িয়ে
যা-কিছু হাত-পা ছোঁড়া দৈনন্দিন দীনতা
অস্থির একাকীত্ব আমার
দু’দন্ড প্রাকৃতিক গোলযোগে
মাথাচাড়া দিয়ে গজিয়ে ওঠা
সেই আমার ধোঁয়াশা পাহাড়।


nilmnai pramanik/cedar falls, ia/april 10, 2015/